১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
সিদ্ধিরগঞ্জে যে কাউন্সিলরা জয়ের হ্যাটট্রিক করেছেন যশোরের শার্শায় ইজিবাইক চালককে হত্যা করে বাইক ছিনতাই রাজাকার-স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকাসহ নতুন পেট্রোবাংলা আইন আসছে ইসি গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে চার প্রস্তাব দিলো আ’লীগ না‌রায়ণগঞ্জ সি‌টি নির্বাচন- ঐক‌্যবদ্ধ ১৮নং ওয়ার্ডবাসী নির্বা‌চিত কর‌লো মুন্না‌কে, নেপ‌থ্যে লাভলু-রানা না’গঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিজয়ী মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভীকে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের উষ্ণ অভিনন্দন বেনাপোল বন্দরে আমদানিকৃত পন্যবাহী ট্রাক থেকে হেলপারের লাশ উদ্ধার নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা ২৭টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর আগামী পাঁচ বছরের জন্য যারা নেতৃত্ব দিবেন নাসিক নির্বাচনে তৃতীয় বারের মত আইভী জয়ী
  • প্রচ্ছদ
  • ছবি ঘর >> টপ নিউজ >> বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  • সাপাহারে সারি সারি বোতলে শোভা পাচ্ছে “লাকি ব্যাম্বু”
  • সাপাহারে সারি সারি বোতলে শোভা পাচ্ছে “লাকি ব্যাম্বু”

    মনিরুল ইসলাম, সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: চোখ ফেরাতেই দৃষ্টি পড়ে বোতলের মাঝে রোপনকৃত সারি সারি সবুজে মন্ডিত দৃষ্টিনন্দন কিছু গাছ। আকারে ছোট হলেও যেন দৃষ্টি কাড়ার মতোই। টিনের চালার সাথে বোতল ঝুলিয়ে তাতে রোপন করা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন “লাকি ব্যাম্বু”। বলছিলাম নওগাঁ জেলার অন্তর্গত সীমান্তবর্তী উপজেলা সাপাহারে অবস্থিত বরেন্দ্র এগ্রো পার্কের কথা। নানা রকম দেশী বিদেশী গাছের সমারোহে ভরপুর এই বরেন্দ্র এগ্রো পার্ক। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য “লাকি ব্যাম্বু”।

    লাকি ব্যাম্বু মূলত: দেখতে অনেকটা বাঁশ সাদৃশ। তবে এটি এমন একটা গাছ যার জন্য খুব বেশি আলো-বাতাসের প্রয়োজন নেই। যে কারো হুট করে চোখে পড়লে বাঁশের চারা বলে মনে হবে। কারণ এর কাণ্ড, পাতা ও আকৃতি দেখতে অনেকটা বাঁশের মতোই। তবে লাকি ব্যাম্বু বাঁশের মতো ঝাড় না পাকিয়ে একই ভাবে বাড়তে থাকে। এজাতীয় গাছগুলো বেশিরভাগ দেখা যায় সৌখিন লোকজন ও বৃক্ষপ্রেমী মানুষদের অন্দরমহল, বাড়ীর আঙ্গিনা, ব্যালকনি,বেডরুম সহ বাড়ীর বিভিন্ন জায়গায়। লাকি ব্যাম্বু বাড়িতে রাখলে পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহ হয় বলে জানা গেছে। আর স্বল্প আলোতে এটির উৎপাদন হবার ফলে বাসার যে কোন স্থানে গাছটি রাখা সম্ভব। অনেকে এই লাকি ব্যাম্বুকে ড্রেসেনা নামে চেনে। বেশিরভাগ লোকজন ধারণা করেন, লাকি ব্যাম্বু বা ড্রেসেনা বাড়িতে রাখা অনেকটাই শুভ লক্ষ্মন বহন করে।

    লাকি ব্যাম্বুর পরিচর্যার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বরেন্দ্র এগ্রো পার্কের প্রতিষ্ঠাতা ও তরুণ কৃষি উদ্যক্তা সোহেল রানা বলেন, সাধারণত টবে পানি ঢেলে তাতে লাকি ব্যাম্বু রাখা হয়। গাছটি অনেকটা মানিপ্ল্যান্টের গাছের মতো। টবে সংরক্ষিত পানির দিকে খেয়াল রাখা বাঞ্ছনীয়। টবে থাকা পানি যদি কালচে হয়ে যায় কিংবা এতে যদি ভাসমান ময়লা দেখা যায় তবে পানি বদলে ফেলতে হবে । অনেক সময় এই পানিতে অ্যালগি সহ শ্যাওলা জন্মায়। সব সময় টব পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।প্রতি দুই সপ্তাহ অন্তর পানি বদলানো ও টব পরিষ্কারের কাজ করতে হবে। পাতা হলদে হয়ে গেলে সেই অংশ ছেঁটে ফেলে দিতে হবে। অন্যথায় পুরো গাছ হলদে হয়ে ফিকে রং ধারণ করবে। যাতে করে গাছ নষ্ট হবার আশংকা রয়েছে।

    সচেতনরা বলছেন, বিভিন্ন ভাবে পরিবেশের অবক্ষয় হবার ফলে অক্সিজেনের মাত্রা কমছে। লাকি ব্যাম্বু বা ড্রেসেনা যেহেতু স্বল্প আলোতেই রোপন করা যায় সেক্ষেত্রে পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন সরবরাহের পাশাপাশি বসতবাড়ীর সৌন্দর্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে জন্য অন্যান্য বৃক্ষের পাশাপাশি নিজ বাড়ীর যে কোন স্থানে লাকি ব্যাম্বু রোপন করা উচিত।

    আরও পড়ুন