৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
প্রধানমন্ত্রী ‘নেতা মোদের শেখ মুজিব’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করলেন ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ইমনকে ছেড়ে দিয়েছে র‍্যাব এ বছর ‘বেগম রোকেয়া’ পদক পাচ্ছেন ৫ নারী নির্বাচিত একজন জনপ্রতিনিধিকে চাইলেই সরিয়ে দেয়া যায় না : হাছান মাহমুদ ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন মুরাদ হাসান পদত্যাগের পর এবার মুরাদের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে : হানিফ মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা ফেসবুকের বিরুদ্ধে ১৫০ বিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজি হত্যায় জড়িত সন্দেহভাজন একজনকে প্যারিসে গ্রেপ্তার অন্তঃসত্ত্বা বড় বোনকে শিরশ্ছেদ করে হত্যা লাকসাম বৈরী আবহাওয়া টানা বৃষ্টিতে থমকে গেছে জনজীবন
  • প্রচ্ছদ
  • ছবি ঘর >> জাতীয় >> টপ নিউজ
  • বিএনপি আমাকে যাই বলুক আমার কিছু যায় আসে না : আইনমন্ত্রী
  • বিএনপি আমাকে যাই বলুক আমার কিছু যায় আসে না : আইনমন্ত্রী

    আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, যেহতু আইনে সুযোগ নেই। ওনারা (বিএনপি) আমাকে যত খুশি গালি দিতে পারেন। কিন্তু আমার কিছু আসে যায় না, আমি আইনানুযায়ী চলবো।

    বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে বিএনপির সংসদ সদস্য জিএম সিরাজের বক্তব্যের জবাবে এসব কথা বলেন আইনমন্ত্রী। এর আগে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে জিএম সিরাজ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মানবিক দিকবিবেচনায় দু’একদিনের মধ্যে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর দাবি জানান।

    সিরাজ বলেন, অন্তত মানবিক কারণে খালেদা জিয়াকে দু’একদিনের মধ্যে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো হোক। ম্যাডামের একটা কিছু হয়ে গেলে এর দায়ভার আজীবন আওয়ামী লীগকে বহন করতে হবে। কিন্তু আইনমন্ত্রী আনিসুল হক তার এ দাবিকে নাকচ করে দেন।

    এসময় সংসদে উপস্থিত আওয়ামী লীগের নারী সংসদ সদস্যসহ অন্যরা হইচই শুরু করেন। স্পিকার তাদের উদ্দেশ্যে বলতে থাকেন, আস্তে আস্তে মাননীয় সংসদ সদস্যরা।

    এর আগে জিএম সিরাজ স্পিকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি জানেন, আমি বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য। আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী যিনি এ আসন থেকে বার বার নির্বাচিত হয়েছেন। তিন তিনবার দেশের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন যিনি, যার জীবনে কখনোই নির্বাচনে হারেননি, যার জন্য দেশবাসীর দোয়া করছেন। বিশেষ করে পোস্ট কোভিডের পর ম্যাডাম জিয়ার শারীরিক অবস্থা ক্রমান্বয়ে অবনতির দিকে যাচ্ছে, যা তাকে দিনে দিনে মৃত্যু মুখে ঠেলে দিচ্ছে। তাই আমাদের আবেদন অতি দ্রুত জামিন দিয়ে ম্যাডামকে দু’একদিনের মধ্যেই বিদেশে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হোক।

    এরপর ফ্লোর নিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, আমি সংসদ সদস্যের বক্তব্য শুনেছি। যা দুদিন আগে বলেছি তার পুনরাবৃত্তি করতে চাই না। আইনের অবস্থান অত্যন্ত পরিষ্কার। আইন যা বলেছে সেই মুহূর্তে মানবিক কারণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা যদিও সাজাপ্রাপ্ত এবং দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত রেখে তাকে বাইরে রাখা হয়েছে।

    আরও পড়ুন