১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
সিদ্ধিরগঞ্জে যে কাউন্সিলরা জয়ের হ্যাটট্রিক করেছেন যশোরের শার্শায় ইজিবাইক চালককে হত্যা করে বাইক ছিনতাই রাজাকার-স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকাসহ নতুন পেট্রোবাংলা আইন আসছে ইসি গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে চার প্রস্তাব দিলো আ’লীগ না‌রায়ণগঞ্জ সি‌টি নির্বাচন- ঐক‌্যবদ্ধ ১৮নং ওয়ার্ডবাসী নির্বা‌চিত কর‌লো মুন্না‌কে, নেপ‌থ্যে লাভলু-রানা না’গঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিজয়ী মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভীকে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের উষ্ণ অভিনন্দন বেনাপোল বন্দরে আমদানিকৃত পন্যবাহী ট্রাক থেকে হেলপারের লাশ উদ্ধার নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা ২৭টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর আগামী পাঁচ বছরের জন্য যারা নেতৃত্ব দিবেন নাসিক নির্বাচনে তৃতীয় বারের মত আইভী জয়ী
  • প্রচ্ছদ
  • অন্যান্য >> অপরাধ >> ছবি ঘর >> টপ নিউজ
  • মণিরামপুরে মুরগী হারানোকে কেন্দ্র করে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে
  • মণিরামপুরে মুরগী হারানোকে কেন্দ্র করে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

    নুরুল হক, মণিরামপুর প্রতিনিধি: মণিরামপুরে মুরগি হারিয়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে তানিয়া খাতুন (২৩) নামে এক গৃহবধুকে মারপিট করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী জামাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে। শনিবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার বেগমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য রোববার সকালে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। তবে ঘটনার পর থেকে স্বামী এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। নিহত তানিয়ার শ^শুরবাড়ির লোকজনের দাবি সে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

    জানাযায়, উপজেলার কুলটিয়া ইউনিয়নের পদ্মনাথপুর গ্রামের কৃষক শওকত মোড়লের মেয়ে তানিয়া খাতুনের সাথে ছয়বছর আগে বিয়ে হয় খানপুর ইউনিয়নের বেগমপুর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে রাজমিস্ত্রী জামাল উদ্দিনের সাথে। পাঁচ বছর বয়সী একমাত্র ছেলে সন্তান মুস্তাহিনকে নিয়ে তাদের সংসার বেশ ভালই চলছিল। শুক্রবার বিকেলে বাড়ি থেকে তাদের একটি মুরগি হারিয়ে যায়। আর এ ব্যাপারে স্বামী জামাল উদ্দিন তানিয়াকে দোষারোপ করে বকাঝকা করেন।

    তানিয়ার মা যমুনা বেগম জানান, মুরগি হারিয়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে শনিবার বিকেলে জামাল এবং তানিয়ার মধ্যে আবারও ঝগড়া হয়। যমুনা বেগমের অভিযোগ ঝগড়ার এক পর্যায়ে জামাল ক্ষিপ্ত হয়ে তানিয়াকে বেধড়ক মারপিট করে। ফলে তানিয়া জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে তাকে উদ্ধারের পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তানিয়াকে মৃত ঘোষনা করেন।

    তানিয়ার পিতা শওকত মোড়লের অভিযোগ তার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। তবে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে স্বামী জামাল উদ্দিন ও তার অভিভাবকরা জানান, অভিমান করে তানিয়া ঘরের মধ্যে আড়ার সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

    অবশ্য তদন্তকারী অফিসার এসআই আশরাফুল আলম জানান, প্রাথমিক তদন্তে হত্যার আলামত পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় নিহতের পিতা বাদি হয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা করেন।

    থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর-ই-আলম সিদ্দিকী জানান, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাবার পর পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    আরও পড়ুন