৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ গ্রেফতার দুই ভোরের দর্পণের সার্কুলেশন ম্যানেজার ইখতিয়ার হোসেনের মা আর নেই বরিশাল নগরীতে মাদক ও সন্ত্রাসী মনির বাহিনীর হামলায় বাবা ও ছেলে আহত গাজীপুরের অন্তসত্ত্বা নারীর উপর সন্ত্রাসী হামলার মুন্সীগঞ্জে গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ: দুই সন্তানের পর দগ্ধ পিতার মৃত্যু দ.আফ্রিকায় ১ দিনেই ওমিক্রনে আক্রান্ত ১৬ হাজার কুড়িগ্রাম জেলা কৃষক দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ সড়কের অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে লাল কার্ড নিয়ে আবারও আন্দোলনে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা নীলফামারীর জঙ্গি আস্তানা থেকে দুই নারীসহ পাঁচজন আটক চিরিরবন্দর উপজেলায় আসন্ন ৫ম ধাপের ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেলেন যারা
  • প্রচ্ছদ
  • ছবি ঘর >> টপ নিউজ >> ঢাকা >> দেশজুড়ে >> রাজনীতি
  • বন্দর ইউনিয়নে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উৎসবের আমেজ
  • বন্দর ইউনিয়নে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উৎসবের আমেজ

    বন্দরে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উৎসবের আমেজ বইছে সাধারন ভোটারদের মাঝে। তবে এবারের নির্বাচনে বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহমেদের লাঙ্গল প্রতিকের বিপরীতে নৌকা প্রতিক নিয়ে লড়াই করবেন ক্ষমতাশীণ দল আওয়ামীগ মনোনীত প্রার্থী মুক্তার হোসেন। সেই সাথে সাধারন ভোটারদের মাঝে নানা কৌতুহলের জন্ম দিচ্ছে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে।

    ভোটারদের মধ্যে কেউ কেউ বলছে বন্দর ইউনিয়নে দুই বারের নির্বাচিত বর্তমান চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিনের সাথে আ’লীগ সমর্থিত প্রার্থী নিতান্তই দূর্বল ও নতুন মূখ। প্রভাবশালী ও সুশিক্ষিত অভিজ্ঞতা সম্পন্ন চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিনের বিপরীতে বন্দর ইউনিয়নে আওয়ামী ঘরনার তেমন শক্ত প্রার্থী নেই এমনটা আশংকা ওয়ার্ডবাসীর।

    সাধারন ভোটারদের মতে, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহমেদ একজন সুশিক্ষিত ও বিচক্ষন ব্যাক্তি। জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি সদা হাসোজ্জল ও মিষ্টভাষী প্রকৃতির লোক। প্রভাবশালী ও দানশীলও বটে। বিগত ১০ বছরের অভিজ্ঞ এই চেয়ারম্যানকে তারা হারাতে চান না। এবারও ভোটাররা দলমত নির্বিশেষে এহসান উদ্দিনকে নির্বাচিত করবেন বলে জানা গেছে। কেননা,দেশের দূর্যোগকালীণ সময়ে এহসান উদ্দিন চেয়ারম্যান অনেক কাজ করেছেন। নিজের জীবনের ঝুকি নিয়ে ঘরবন্ধী মানুষের মূখে খাবার তুলে দিয়েছেন। সাধারন মানুষের সমস্যায় নিজ দায়িত্ব নিয়ে নিরসন করেছেন। প্রতিটি ওয়ার্ডের মেম্বারদের তিনি নিজেই মনিটরিং করতেন। এমন দায়িত্ববান চেয়ারম্যানকে তারা পূণরায় বিপুলভোটে নির্বাচিত করবেন বলে জানান।

    তারা আরো জানান, ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হচ্ছে একটি স্থানীয় পর্যায়ের নির্বাচন। এখানে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী মুক্তার হোসেনকে অনেকেই চিনেননা। আ’লীগের মার্কা নৌকার উপর ভর করে কেউ যদি বৈতরনী পার হতে চায় সেটা সাধারন জনগন কখনো হতে দেবে না। যার দ্বারা উন্নয়ণ ত্বরাম্বিত হয় কিংবা যোগ্যতা সম্পন্ন ব্যাক্তি এমন প্রার্থীকেই তারা নির্বাচিত করবেন। সেক্ষেত্রে বর্তমান চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহমেদের বিকল্প খুজে পাচ্ছেন না ভোটাররা।

    আরও পড়ুন