৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ গ্রেফতার দুই ভোরের দর্পণের সার্কুলেশন ম্যানেজার ইখতিয়ার হোসেনের মা আর নেই বরিশাল নগরীতে মাদক ও সন্ত্রাসী মনির বাহিনীর হামলায় বাবা ও ছেলে আহত গাজীপুরের অন্তসত্ত্বা নারীর উপর সন্ত্রাসী হামলার মুন্সীগঞ্জে গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ: দুই সন্তানের পর দগ্ধ পিতার মৃত্যু দ.আফ্রিকায় ১ দিনেই ওমিক্রনে আক্রান্ত ১৬ হাজার কুড়িগ্রাম জেলা কৃষক দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ সড়কের অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে লাল কার্ড নিয়ে আবারও আন্দোলনে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা নীলফামারীর জঙ্গি আস্তানা থেকে দুই নারীসহ পাঁচজন আটক চিরিরবন্দর উপজেলায় আসন্ন ৫ম ধাপের ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেলেন যারা
  • প্রচ্ছদ
  • অর্থনীতি >> ছবি ঘর >> জাতীয় >> টপ নিউজ
  • আগামী একমাস পেঁয়াজের বাজার নাজুক থাকবে: বাণিজ্যমন্ত্রী
  • আগামী একমাস পেঁয়াজের বাজার নাজুক থাকবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

    ছবি: সংগৃহীত

    আগামী একমাস পেঁয়াজের বাজার নাজুক থাকবে, তবে বাজারে এখন যে দাম আছে তার চেয়ে বেশি হবে না বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

    সোমবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে চার পণ্যের দাম বৃদ্ধি নিয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ব্রিফিংয়ে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

    মন্ত্রী বলেন, দাম যাতে না বাড়ে সেজন্য ব্যবসায়ীদের সাবধান করা হয়েছে। তেল ও চিনির দামও নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। সরকারি নির্দেশ অমান্য করে কেউ দাম বাড়ালে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    ব্রিফিংয়ে বাণিজ্যসচিব জানান, বৈঠকে পেঁয়াজ ভোজ্য তেল, চিনি, মসুর ডাল-সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে পেঁয়াজ নিয়ে। কারণ, এর আগের বৈঠকগুলোয় ভোজ্য তেল ও চিনির বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। এখন ভোজ্যতেল নির্ধারিত দামে বিক্রি হচ্ছে। চিনির দাম একটু বাড়লেও সেটি নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করেছে। ফলে আলোচনার লম্বা সময় পেঁয়াজ ইস্যুটি গুরুত্ব পেয়েছে।

    সচিব জানান, ভারতের ব্যাঙ্গালোরে বৃষ্টির কারণে পেঁয়াজের দাম কিছুটা বেড়েছে। এর জন্য দুই দেশের ব্যবসায়ীরা দায়ী। তবে সরকার তাৎক্ষণিকভাবে পদক্ষেপ নেওয়ায় এখন পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ৫ থেকে ৬ টাকা কমে এসেছে। আগামীতে দাম আরও কমবে।

    তবে কৃষি মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, দেশের নতুন পেঁয়াজের সরবরাহ ওঠার আগ পর্যন্ত আগামী এক মাস দেশে পণ্যটির দাম কিছুটা নাজুক থাকবে।

    তপন কান্তি ঘোষ বলেন, ‘পেঁয়াজের ৮০ ভাগ দেশে উৎপাদন হয় আর ২০ ভাগ আমদানির মাধ্যমে পূরণ করা হয়। মূলত ভারত থেকেই বেশিরভাগ আমদানিকৃত পেঁয়াজ আসে। কিন্তু ব্যাঙ্গালোরে বৃষ্টি এবং সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের লিয়েন পিরিয়ড বিবেচনায় ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করতে পারে এমন আশঙ্কায় পেঁয়াজের দাম কিছুটা অস্থিরতা তৈরি হয়।

    সচিব বলেন, ‘দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয় থেকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাছে পেঁয়াজের ওপর আরোপিত ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার করার চিঠি দেওয়া হয়েছে। আজকের বৈঠকেও এনবিআর প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। তিনি অংশীজনদের সঙ্গে বৈঠকে পেঁয়াজের ওপর শুল্ক প্রত্যাহারের বিষয়ে ইতিবাচক বার্তা দিয়েছেন। এছাড়া আমরা বিকল্প বাজার হিসেবে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আনার উদ্যোগ নিয়েছি। দ্রুত আমদানিকারকদের আইপি ইস্যু করা হচ্ছে। টিসিবির মাধ্যমে ট্রাক সেল কার্যক্রম বাড়ানো হচ্ছে। পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যবসায়ীদের কঠোর বার্তা দেওয়া হয়েছে।’

    এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘যেসব পণ্যের দাম নির্ধারণের সুযোগ আছে, তা নির্ধারণের মাধ্যমে দাম নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে সব জায়গায় ইন্টারফেয়ার করা যায় না, এতে আরও সমস্যা হয়।’

    তিনি বলেন, ‘দেশে এখন পাঁচ লাখ টন পেঁয়াজ মজুদ আছে। পাশাপাশি পেঁয়াজ আমদানির যে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, চারদিকের এসব উদ্যোগের ফলে আশা করছি পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।’তিনি সংবাদপত্র ও গণমাধ্যমকর্মীদের তথ্য পরিবেশনের ক্ষেত্রে সঠিক তথ্য উপস্থাপনের পরামর্শ দেন।

    এদিকে, দাম নিয়ন্ত্রণে শুল্ক কমাতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে অনুরোধ করা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

    আরও পড়ুন