৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
প্রধানমন্ত্রী ‘নেতা মোদের শেখ মুজিব’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করলেন ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ইমনকে ছেড়ে দিয়েছে র‍্যাব এ বছর ‘বেগম রোকেয়া’ পদক পাচ্ছেন ৫ নারী নির্বাচিত একজন জনপ্রতিনিধিকে চাইলেই সরিয়ে দেয়া যায় না : হাছান মাহমুদ ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন মুরাদ হাসান পদত্যাগের পর এবার মুরাদের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে : হানিফ মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা ফেসবুকের বিরুদ্ধে ১৫০ বিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজি হত্যায় জড়িত সন্দেহভাজন একজনকে প্যারিসে গ্রেপ্তার অন্তঃসত্ত্বা বড় বোনকে শিরশ্ছেদ করে হত্যা লাকসাম বৈরী আবহাওয়া টানা বৃষ্টিতে থমকে গেছে জনজীবন
  • প্রচ্ছদ
  • আন্তর্জাতিক >> ছবি ঘর >> টপ নিউজ
  • ১৮ মাস বন্ধ রাখার পর অবশেষে সীমান্ত খুলে দিলো অস্ট্রেলিয়ার
  • ১৮ মাস বন্ধ রাখার পর অবশেষে সীমান্ত খুলে দিলো অস্ট্রেলিয়ার

    ছবি: সংগৃহীত

    ১৮ মাস বন্ধ রাখার পর অবশেষে নিজেদের আন্তর্জাতিক পুনরায় সীমন্ত খুলে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। আগামী নভেম্বর থেকে করোনার টিকাগ্রহণকারী নাগরিক দেশটিতে প্রবেশ ও অন্য দেশ ভ্রমণ করতে পারবেন। খবর আল জাজিরার।

    শুক্রবার (১ অক্টোবর) এক সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এ কথা জানান।

    স্কট মরিসন বলেন, অস্ট্রেলিয়ানদের জীবন ফিরিয়ে দেয়ার সময় এসেছে। যেসব রাজ্যে ভ্যাকসিন প্রদানের হার ৮০ শতাংশ ছাড়িয়েছে সেখানকার নাগরিকেরা ভ্রমণ করতে পারবেন। যদিও তাৎক্ষণিকভাবে বিদেশিরা দেশটিতে ভ্রমণের সুযোগ পাচ্ছেন না। তবে পর্যটকদের স্বাগত জানানোর লক্ষ্যে কাজ চলছে।

    তিনি আরও বলেন, নভেম্বর থেকে করোনার বিধিনিষেধ শিথিল হচ্ছে। নতুন নিয়মে টিকা নেয়া ভ্রমণকারীদের অস্ট্রেলিয়া প্রবেশের পর থাকতে হবে ৭ দিনের ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’। এরপর যখন টিকা গ্রহণ না করা ব্যক্তিরাও প্রবেশের অনুমতি পাবেন, তখন তাদেরও ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

    উল্লেখ্য, ২০২০ সালের মার্চ মাসে নিজেদের সীমান্ত বন্ধ করে দেয় অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বের অন্যতম কঠোর এই নিষেধাজ্ঞার কারণে নিজেদের নাগরিকেরাই অস্ট্রেলিয়ার বাইরে যেতে পারেনি। করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য নীতিটি প্রশংসিত হলেও নাগরিকদের পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলার জন্য সমালোচিতও হয়।

    আরও পড়ুন