১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা ২৭টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর আগামী পাঁচ বছরের জন্য যারা নেতৃত্ব দিবেন নাসিক নির্বাচনে তৃতীয় বারের মত আইভী জয়ী নাসিক নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ চলছে গণনা গভীর রাতে শীতার্ত অসহায় মানুষের পাশে সাপাহার থানার ওসি চিরিরবন্দরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের করোনা ভ্যাকসিন ১ম ডোজের টিকা প্রদান চিরিরবন্দরে শ‍্যামলী পরিবহন- অটো মুখোমুখি সংঘর্ষে, নিহত-২ আহত ১ ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহন চলছে, ভোটারদের উপস্থিতি কম অমিক্রন প্রতিরোধে বেনাপোল ইমিগ্রেশন উদাসীন ! “৮ মাসের শিশু” অপহরণের ৭২ ঘন্টার মধ্যে ঢাকার উত্তরা থেকে উদ্ধার
  • প্রচ্ছদ
  • এক্সক্লসিভ >> কর্পোরেট >> চট্টগ্রাম
  • কুমিল্লার মুরাদনগরে ও নবীনগরে পাচশতাধিক গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে ভুমিসহ পাকাঘর
  • কুমিল্লার মুরাদনগরে ও নবীনগরে পাচশতাধিক গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে ভুমিসহ পাকাঘর

    ষ্টাফ রিপোর্টার ঃ
    কুমিল্লা জেলার মুরাদনগরের ও ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগরের ভিটি বিশাড়া সহ বেশ কটি ইউনিয়নের হতদরিদ্র গৃহহিন দের জন্য দুই কক্ষ বিশিষ্ট ভুমি সহ বাড়ি দেওয়া হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে।
    গল্প নয় বাস্তবেই পেলেন মমতাজ।
    মমতাজ বেগম (৬৩)। স্বামী মারা যাওয়ার পর নদীভাঙ্গনে নিয়ে যায় তার বাড়ি ও ভিটে।
    ৩ সন্তান নিয়ে ঠাঁই হয় অন্যের জমিতে। বছরের পর বছর গড়ায়। দিনমজুর ছেলেরাও নিজের নিজের সংসার পেতে আলাদা হয়ে যায়। এখন ছোট ছেলের আয়ে তার সংসার ঠিকমত চলে না। এমন সময় খবর পেলেন মুজিবকন্যা ঘর দিবে। আবেদন করলেন। ঘরও পেলেন।

    মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া পাকাঘর পেয়ে খুশি।
    শুধু মমতাজ বেগমই নন তার মতো কুমিল্লা জেলা মুরাদনগর উপজেলা ও ব্রাহ্মণ বাড়ীয়া জেলার নবীনগর উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের ভিটিবিশাড়াসহ দুই উপজেলায় পাচ শতাধিক অসহায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবাররা মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার পাচ্ছেন। মাথা গোঁজার স্থায়ী আবাসন পেয়ে দারুণ খুশি ভূমিহীন হতদরিদ্র সুবিধাভোগী পরিবারগুলো।
    মুরাদনগরে গৃহহীন পরিবারকে মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে পাকাঘর নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ঘর উপহার পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হতদরিদ্র ভূমি ও গৃহহীন ওইসব পরিবারের সদস্যরা।অপর দিকে তেমননি নবীনগরের ভিটি বিশাড়ার ভুমিহিন রা পেতে যাচ্ছে তাদের উপহার।এতে অবদান রয়েছে স্থানীয় সংসদ এবাদুল করিম বুলবুল ও ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মোঃখলিলুর রহমানের।

    এদিকেগতকাল সোমবার দুপুরে মুরাদনগরের স্থানীয় সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ নির্মাণাধীন ঘরগুলো পরিদর্শনে গেলে আনন্দের অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন ঘর পাওয়া পরিবারগুলো।

    পরিদর্শনকালে সংসদ সদস্য জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন মুজিববর্ষে কেউ গৃহহীন থাকবে না। তাই প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে এসব ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। ঘরগুলো ব্যবহারের উপযোগী হলেই, ভার্চুয়াল মিটিং এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহহীনদেরকে দুই শতাংশ জমির রেজিস্ট্রি দলিলসহ এই ঘর নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।
    উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাশ ও নবীনগরের নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃএকরামুল ছিদ্দিক জানান, আশ্রয়ণের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার, এ স্লোগানকে সামনে রেখে সরকারি খাস জমির ওপর ভূমিহীনদের জন্য নির্মাণ করা হচ্ছে দ্বিকক্ষ বিশিষ্ট আধুনিক আবাস। অসহায় মানুষের মাঝে শুধু ঘর নয়, থাকছে রান্নাঘর, টয়লেট ও সামনে খোলা বারান্দা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নিয়োগ না করে নিজেরাই ঘর নির্মাণ করছেন। ফলে কম খরচে ভাল মানের ঘর নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে। প্রতিটি ঘরের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে এক লাখ ৭২ হাজার টাকা।এদিকে ভিটি বিশাড়ার একাধিক গৃহহিনদের অভিযোগ একটি মহল প্রতিঘর থেকে ৫০;৭০ হাজার টাকা চাচ্ছে। এব্যাপারে নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান বিষটি আমার জানা নেই।এসিল্যান্ডের সাথে যোগাযোগ করেন।এসিলেন্ডের ফোনে যোগাযোগ করলে বন্ধ পাওয়া যায়।

    আরও পড়ুন