২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
দুর্নীতিবাজরা যাতে শাস্তি পায় দুর্নীতি দমন কমিশন এর প্রতি আহ্বান : রাষ্ট্রপতি খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল আরও ৬ কুমিল্লায় বিয়ে বাড়িতে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ গোলাগুলিতে আহত ১৫ কপিরাইট আইন লঙ্ঘনের মামলা করতে আদালতে গেলেন জেমস আফগানিস্তানে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক চলাকালীন সময়ে মোল্লা আবদুল ঘানি বারাদারকে অপর মন্ত্রী খলিলুর রহমান হাক্কানি ঘুষি পুলিস সুপারের হস্তক্ষেপ দাবী: ঋতু ও সাথী’র প্রতারনার হাত থেকে বাচঁতে অসহায় পরিবারের আকুতি শাফিনকে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান করা হয়েছে বাঘের তাড়া কিংবা খাদ্যের সন্ধানে মায়া হরিণ লোকালয়ে বাংলা চলচ্চিত্রের উজ্জ্বল নক্ষত্র সালমান শাহ বেঁচে থাকলে ৫০ বছরে পা রাখতেন আলিয়ার ভক্তদের জন্য বিজ্ঞাপনের ভিডিও শেয়ার করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে : আলিয়া
  • প্রচ্ছদ
  • অন্যান্য >> চট্টগ্রাম
  • ফুলগাজীতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের বেহাল দশা ৪ মাসেও সংস্কার কাজ হয়নি দুর্ভোগ চরমে
  • ফুলগাজীতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের বেহাল দশা ৪ মাসেও সংস্কার কাজ হয়নি দুর্ভোগ চরমে

    ফেনী প্রতিনিধি:- ফেনীর ফুলগাজী উপজেলায় প্রতিবছর বর্ষামৌসুমে ভারতের উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলের পানির চাপে প্রবাহমান মুহুরী নদীর বাঁধে ভাঙন দেখা দেয়। ফলে নদীর পাড়ে বসবাসরত মানুষের ঘরবাড়ি,রাস্তাঘাট ও পোল কালভার্টের ব্যপক ক্ষতি হয়। সরেজমিনে দেখা যায়, চলতি বছরের জুলাই মাসে ফুলগাজীতে প্রথম ধাপের বন্যায় গ্রামীন সড়কের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলো হল পরশুরাম বাশঁপদুয়া বক্সমাহমুদ সড়ক, উত্তর দৌলতপুর শেখ রাসেল সড়ক,ফুলগাজী জিয়া সড়ক, সাহাপাড়া সড়ক ও জয়পুর সড়ক। এসব সড়কের মধ্যে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পরশুরাম বাশঁপদুয়া বক্সমাহমুদ সড়কটি। কিছমত ঘনিয়ামোড়া বজল চকিদার বাড়ির পাশের এই সড়কটির প্রায় ২শ মিটার অংশ ভেঙে পুকুরে পতিত হয়। এছাড়াও উত্তর দৌলতপুর শেখ রাসেল সড়কের প্রায় ১শ মিটার অংশ ভেঙে জমিতে বিলীন হয়ে যায়। বাকী সড়কগুলোর কার্পেটিং উঠে গিয়ে খানাখন্দে গর্ত সৃষ্টি হয়ে যানচলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। বন্যার পানি নেমে গেলে সড়কের ক্ষতচিহ্ন ভেসে উঠে। বন্যার ৪ মাস অতিবাহিত হলেও এখনো পর্যন্ত ভাঙা সড়ক সংস্কার না হওয়ায় স্বাভাবিক ভাবে যানচলাচল করতে পারছে না, দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে গাড়ির চালক ও যাত্রীসাধারনকে। এ সড়ক দিয়ে ফুলগাজী সদর হয়ে পরশুরাম,বক্সমাহমুদ,খন্ডলহাই বাজার,মনুরহাট,বক্তারহাট,গজারিয়া,চাঁদগাজী ও ছাগলনাইয়া বাজারে যাওয়া যায়। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ৫ হাজার সিএনজি অটোরিক্সা,টমটম,মটরচালিত রিক্সা,ট্রাক,পিকাআপ সহ আরো অসংখ্য গাড়ি চলাচল করে। প্রতিদিন প্রায় ১ লক্ষ মানুষ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে। এই সড়কে কয়েকটি স্কুল,কিন্ডার গার্ডেন ও মাদ্রাসা এতিমখানা রয়েছে। কিন্তুু, জনগুরুত্বপূর্ণ বেহাল সড়কটিতে বড় গর্তগুলো মেরামত করে ভাঙা সড়কে মাটি দিয়ে যানচলাচলের পথ সচল করা হয়নি আজও। এ বিষয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী ও গাড়ি চালকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নদী ঘেঁষা পরশুরাম বাশঁপদুয়া বক্সমাহমুদ সড়কটি বন্যার পানির তীব্র ¯্রােতে বিশাল ভাঙনের ফলে গাড়ি চলাচল করতে পারছে না গত ৪ মাস ধরে। তারা বলেন, যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে বন্যার পানি নামার পর ভাঙা সড়কটি মেরামত করার জন্য তারা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে বারবার অবহিত করার পরও তারা কোন উদ্যোগ নেয়নি। পরে গাড়ি চালকরা নিজেদের পকেটের টাকা দিয়ে কোনরকমে মাটি ফেলে গাড়ি চলাচলের কিছুটা উপযোগী করলেও এখনো পুরোদমে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়নি। সড়কে গর্তটি এতই গভীর যে গাড়ি নামলে ঠেলে উপরে তুলতে অনেক কষ্ট হয়। প্রতিদিন ভাঙা সড়কের গর্তে গাড়ি উল্টে অনেক যাত্রী ও চালক আহত হয়েছেন বলে তারা জানান। তারা দ্রæত এই সড়কটি মেরামতের জোর দাবী জানান।ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন,বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সংস্কারের জন্য ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও এলজিইডিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।এ বিষয়ে জানতে চাইলে ফুলগাজী সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বলেন,এসব সড়কের জরুরী মেরামতের কাজ ইউনিয়ন পরিষদের ফান্ড থেকে করবে বা চেয়ারম্যান ব্যক্তিগত ভাবে করে দেবে এরকম কোন বিধান নেই। এটি এলজিইডির সড়ক তারা করবে।উপজেলা প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মনির হায়দার বলেন,ফুলগাজীতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫ টি সড়ক ও ১ টি কালভার্ট চিহ্নিত করা হয়েছে। আমরা ইতোমধ্যে উদ্ধতন অফিসে প্রাক্কলন সহ প্রস্তাব প্রেরণ করেছি,বরাদ্দ এলে দ্রæত সড়ক মেরামতের কাজ শুরু হবে।

    আরও পড়ুন