২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
আল্লামা সৈয়দ ফজলুল করিম রহ. জীবন ও কর্মশীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চিরিরবন্দর উপজেলায় নির্বাচিত ও সম্ভাব্য নারীপ্রতিনিধিগণের যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কে বাংলাদেশ রাইটার্স ক্লাব নারায়ণগঞ্জ এর পক্ষে ফুলেল শুভেচ্ছা ভেনেজুয়েলার এক মা নিজে মূত্রপান,সন্তানদের স্তন্যপান করিয়ে মাঝ সমুদ্রে মারা গেলেন ট্রফি জয়ের ঘোষণা দিয়ে বিশ্বকাপে যাব : তামিম ইকবাল বাবা-মায়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলেন বিজয় শেখ হাসিনা ও মনমোহন সিংয়ের আপত্তিকর ছবি পোস্ট করায় সাইবার ট্রাইব্যুনাল ৭ বছরের কারাদণ্ড জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন মাতালো দক্ষিণ কোরিয়ান বয় ব্যান্ডের বিটিএস রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের চুল্লি থেকে পড়ে একজন মারাত্মক আহত,নিহত ২ রবি চৌধুরী ফেসবুকে ইভার বিয়ের পোস্ট ইভা রহমান এখন ইভা আরমান
  • প্রচ্ছদ
  • এক্সক্লসিভ >> দেশজুড়ে >> লিড
  • পেঁয়াজের দাম বাড়ায় ভোগান্তি
  • পেঁয়াজের দাম বাড়ায় ভোগান্তি

    হঠাৎ পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়াতে ভোগান্তিতে ক্রেতারা। তবে সে তুলনায় মুনাফার মুখ দেখছে না কৃষক।
    ব্যবসায়ীরা মনে করছেন সরবরাহ কম থাকা ও নজরদারীর অভাবে এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বেশি হওয়ায় বাজার ঊর্ধ্বমুখী। বলা হচ্ছে, নতুন পেঁয়াজ আসলে স্বাভাবিক হবে বাজার।

    দেশে উৎপাদিত পেঁয়াজের এক তৃতীয়াংশ সরবরাহ হয় পেঁয়াজভাণ্ডার হিসেবে খ্যাত পাবনা থেকে। কিন্তু এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজি প্রতি ৩৫ টাকার পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকায়। অস্বাভাবিকভাবে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছে মানুষ।

    বাজারে সরবরাহ কম থাকা ও অতি বৃষ্টিতে পঁচনের কারণে দাম বাড়ছে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। তবে পাবনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আজাহার আলী দাবি ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বেশি হওয়ায় বাজার ঊর্ধ্বমুখী।

    বন্যার কারণে ফরিদপুরের অনেক এলাকায় পেঁয়াজের আবাদ হয়নি। আবার মাঠেই পঁচে গেছে অনেক পেঁয়াজ। এ অবস্থায় আগাম বা মুড়িকাটা পেঁয়াজ বাজারে না আসলে আরও দুই থেকে তিনমাস দাম বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে বলে জানান উপজেলার কৃষি অফিসার মোহাম্মদ আবুল বাশার।

    রাজবাড়িতে স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে দুই লাখ টন পেঁয়াজ বিভিন্ন স্থানে রপ্তানি হয়। এর গ দেশি পেঁয়াজের দাম বাড়ায় নজরদারীর অভাবকে দুষছেন ব্যবসায়ীরা।

    এদিকে, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন, হঠাৎ করেই ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের যৌক্তিক কারণ খুঁজে পাচ্ছেনা বাংলাদেশ। তবে গতবারের মত সংকট হবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন তিনি।

    ডিবিসি নিউজের একটি অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, “কয়েকদিন ধরে বলা হচ্ছিল বৃষ্টি জনিত কারণে সমস্যা হয়েছে এবং যেটুকু বেড়েছে সেটা সাময়িক।”

    সূত্রঃ দৈনিক ভোরের ডাক

    আরও পড়ুন