Home / প্রধান সংবাদ / হাজীগঞ্জে মাদকাসক্ত সানজিল বেপরোয়া।গ্রেফতার দাবী 

হাজীগঞ্জে মাদকাসক্ত সানজিল বেপরোয়া।গ্রেফতার দাবী 

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানাধীন  হাজীগঞ্জ এলাকায় মাদকাসক্ত সানজিল দিনে দিনে ভয়ন্কর অপরাধী হয়ে উঠছে।সে এতটাই বেপোয়ারা ও বেয়াদব  যে কাউকে সন্মান না করে বরং ক্ষিপ্ত হয়ে মারমুখী আচরন করে থাকে।সে এলাকায় ছিচকে চাঁদাবাজ হিসেবে পরিচিত।ইদানিং ভূয়া দুদক চক্রের সাথে নিজেকে জড়িত করে বিরদর্পে মানুষের সাথে প্রতারনা করে নগদ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এমনটাই অভিযোগ উঠেছে  তার বিরুদ্ধে ।
মৃত আলী হোসেন এর পুএ সানজিল সে রাতদিন মাদক সেবন করে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপরাধ মূলক কাজ করে যাচ্ছে। সানজিল কিশোর গ্যং এর একজন সক্রিয় সদস্য।
সম্প্রতি ফতুল্লা মডেল থানায় আটককৃ ভূয়া  দুদকের কর্মকর্তার সহযোগি হয়ে এক ব্যবসায়ীর নিকট চাঁদা দাবি করতে গেলে এলাকাবাসী ভূয়া পরিচয় দানকারী দুদক কর্মকর্তা হায়দারকে আটক করলেও সানজিল দৌড়ে পালিয়ে যান। সানজিল বর্তমানে মামলার পলাতক আসামি হিসেবে চিহ্নত।
সে নিজেকে কখনো যুবলীগ, ছাএলীগের নেতা দাবি করে। এলাকায় তার একটি সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে চাঁদাবাজি করে থাকে।সে  কিশোর গ্যাং দলের সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে এমন কথাও শুনাযায় সে কিশোর দের দিয়ে এলাকায় মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে অবাধে। বিভিন্ন অপরাধে সানজিলের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক অভিযোগ থাকলেও থানা পুলিশ এখনো তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
স্হানীয় এলাকা সূএে যানা যায়,
বছর খানেক আগে তল্লার তুষার নামে ছেলেকে আঘাত করে রক্তাক্ত করে সানজিলগং। এ ঘটনায় আদালতে মামলা চলমান। ওই মামলায় ২ আসামী গ্রেফতার হলেও পলাতক থাকে সানজিল। নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলালের হস্তক্ষেপে মামলাটি মিমাংসা করা হয়। এরপর থেকেই সে চরম বেপরোয়া হয়ে পড়ে।
সানজিল এলাকায় কিশোর গ্যাং তৈরী করেছে। সে একাধিক মামলার আসামী। সে মৃত আলী হোসেন মিয়ার সন্তান। বাল্যকাল থেকেই সে নেশায় আসক্ত। নেশার টাকা জোগাতে বিভিন্ন অপকর্ম করে। তারা বহুদিন ধরে হাজীগঞ্জে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করার চেষ্টা করে যাচ্ছে।মাদক, ইভটিজিং, চাঁদাবাজি, ভূমিদস্যুতাসহ অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। গ্রেফতার কৃত ভূয়া দুদক কর্মকর্তা হায়দার জানায়, সানজিল আমাকে দিয়ে ২ লাখ টাকা চাঁদা আদায়ের চেষ্টা করে নাদির নামে এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে। আমাকে ব্যবহার করে সে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে বহু টাকা হাতিয়ে নেয়। দিনে দিনে অসাধু
স্থানীয় কতিপয়  অসাধু প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় প্রতিনিয়ত সে ভয়ঙ্কর রূপ ধারন করছে।
ফতুল্লা মডেল থানার উপ পরিদর্শক হাফিজুর রহমান সানজিল এর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  ভুয়া দুদক কর্মকর্তা সেজে সে চাঁদাবাজি করার বিষয়ে সানজিল এর  বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।  সে এখন পলাতক আসামি। সানজিলকে গ্রেফতার করার জন্য খুঁজছি।
সানজিল এর এমন বেপোয়ারা গতি পথ রোধ না করতে পারলে সমাজের যুব সমাজ ধ্বংসের পথে যাবে। সে একজন টিভি ম্যাকার মিস্ত্রির সন্তান। নামে মাএ ফকিরা গার্মেন্টসে চাকরি করার দোহাই দিয়ে এমন অপরাধ মূলক কাজ করে যাচ্ছে দিনে দিনে।সে কাউকে শ্রদ্ধা বা সন্মান করে না সে একজন চরম বেয়াদব ছেলে। এলাকাবাসী ও ভূক্তভোগির দাবী তাকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেয়া হোক।

Check Also

রূপগঞ্জের সেজান জুস কারাখানায় অগ্নিকাণ্ড: লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা

রূপগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সেজান জুসের কারাখানায় অগ্নিকাণ্ডে মৃত ২৪ জনের মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *