Breaking News
Home / প্রধান সংবাদ / ভারতে কারাভোগ শেষে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে দেশে ফিরলো ২ শিশুসহ ১২ বাংলাদেশী নারী-পুরুষ

ভারতে কারাভোগ শেষে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে দেশে ফিরলো ২ শিশুসহ ১২ বাংলাদেশী নারী-পুরুষ

যশোর :

অবৈধ পথে ভারত গিয়ে দেড় থেকে ৩ বছর কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছেন ২ শিশুসহ ১২ বাংলাদেশী নারী-পুরুষ। শনিবার (৩০ জানুয়ারী) বিকাল ৫ টার সময় বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। তারা ভারতে দেড় থেকে ৩ বছর কারাভোগ করেছে বলে ভুক্তভোগীরা জানায়। পরে বেনাপোল পোর্ট থানা থেকে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থা তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তরের জন্য যশোর শেল্টার হোমে নিয়ে যায়। ফেরত আসাদের মধ্যে ৩ জন নারী, ৭ জন পুরুষ ও দুইটি শিশু রয়েছে। এরা বাগেরহাট, খুলনা ও বরগুনা জেলার বাসিন্দা। জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের এরিয়া ম্যানেজার এবিএম মুহিত বলেন, বিভিন্ন সময়ে দালালের খপ্পরে পড়ে ভালো কাজের আসায় তারা ভারতে যায়। সে দেশের ব্যাঙ্গালুর এলাকায় বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে কাজ করার সময় তারা ভারতীয় পুলিশের হাতে আটক হয়। সেখান থেকে তালাশ নামে একটি এনজিও সংস্থা ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে ।দেড় থেকে ৩ বছর পর তারা দেশে ফিরে এসেছে। বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব বলেন, ‘এ সব নারী-পুরুষরা পাসপোর্ট ভিসা ছাড়া বিভিন্ন সীমান্ত পথে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে কাজ করার সময় সেই দেশের পুলিশের হাতে আটক হয়। এরপর আদালতের মাধ্যমে তারা জেলহাজতে যায়। পরে ভারতের ব্যাঙ্গালুরে তালাশ নামে একটি বেসরকারি এনজিও সংস্থা তাদের জেল থেকে ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। সেখানে দেড় থেকে ৩ বছর থাকার পর ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে আজ দেশে ফিরেছে । ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবেন।

Check Also

ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ ও সেই অভিভাবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মন্ত্রণালয়ে

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার ও অভিভাবক মীর সাহাবুদ্দিন টিপুর ফাঁস হওয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *