Home / প্রধান সংবাদ / পৌর কর আদায়কারী শান্টুর নাগরিক সেবাই মুগ্ধ মণিরামপুর পৌরবাসি

পৌর কর আদায়কারী শান্টুর নাগরিক সেবাই মুগ্ধ মণিরামপুর পৌরবাসি

মণিরামপুর প্রতিনিধি: ‘আপনারে লয়ে বিব্রত রহিত, আসে নাই কেহ অবনি পরে। সকলের তরে সকলে মোরা, প্রত্যেকে মোরা পরের তরে। কর্মক্ষেত্রে যারা ন্যায়নীতি, নিষ্ঠা, আদর্শ ও মানুষের ভালোবাসা নিয়ে কাজ করেন-মণিরামপুর পৌরসভার কর আদায়কারী সাহিনুল হাসান শান্টু তাদের মধ্যে একজন। হাস্যোজ্জল, সদালাপি ও সূমিষ্টভাষী একজন পরিছন্ন মানুষ হিসেবে পৌরবাসির কাছে তিনি অতি সুপরিচিত। ১৯৯৭ সালে মণিরামপুর পৌরসভা হিসেবে ঘোষনা হয়। শান্টু ২০২১ সালে মণরামপুর পৌরসভার পৌর কর আদায়কারী হিসেবে যোগদান করার পর থেকে অদ্যবদি পর্যন্ত সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

মানুষ সামাজিক জীব। আর এই সামাজিক জীব হওয়ায় মানুষ একে অপরের ওপর নির্ভরশীল। মানুষের এই নির্ভরশীলতা মানুষকে জানিয়ে দিতে চায় যে, তুমি অন্যের সেবার ওপর নির্ভরশীল। তাই মানুষ মানুষের জন্য এ নীতিতে বিশ্বাস রেখে শান্টু সকল শ্রেণির পেশার মানুষের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালবাসা নিয়ে নিষ্ঠার সাথে নিবেদিত প্রাণ হিসেবে কাজ করেন যাচ্ছেন।

সাহিনুল হাসান সাহিনুল হাসান শান্টু বলেন, ‘এই পৃথিবীতে কোনো মানুষই চিরস্থায়ী নয়। মানুষ কেবলই চিরস্থায়ী থাকতে পারে তার মহৎ কর্মের মাধ্যমে। কর্মই মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে আজীবন। মানুষের পরিচয় ফুটে উঠে তার কর্মের মধ্য দিয়ে। যারা শুধু নিজের সুখ নিয়ে ব্যস্ত থাকে তারা কখনও সত্যিকারের সুখের সন্ধান পায় না। সামর্থ আছে, সুস্থ আছে-এমন মানুষ জীবনে যদি কোন ভালো কাজ করতে না পারে-তাহলে তার জীবন সম্পূর্ণ অর্থহীন। যে কারণে অর্থ উপার্জন থেকেও সেবাইটাকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করার চেষ্টা করি মাত্র।’

 

Check Also

রূপগঞ্জের সেজান জুস কারাখানায় অগ্নিকাণ্ড: লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা

রূপগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সেজান জুসের কারাখানায় অগ্নিকাণ্ডে মৃত ২৪ জনের মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *