Breaking News
Home / প্রধান সংবাদ / এক সাংবাদিককে গাছে বেঁধে নির্যাতনের প্রতিবাদে ও দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে সুনামগঞ্জে রিপোর্টার্স ইউনিটির মানববন্ধন

এক সাংবাদিককে গাছে বেঁধে নির্যাতনের প্রতিবাদে ও দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে সুনামগঞ্জে রিপোর্টার্স ইউনিটির মানববন্ধন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে দৈনিক সংবাদের স্থানীয় প্রতিনিধি কামাল হোসেনকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের প্রতিবাদে ও জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করেকঠোর শাস্তি প্রদানের দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির আয়োজনে শহরের আলফাত উদ্দিন স্কয়ার ( ট্রাফিক পয়েন্টে) এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। এতে œ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্র মিডিয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মী ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা একাত্মতা পোষন করেন। এদিকে আজ মঙ্গলবার সকালে এই ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে চার জনকে আটক করে তাহিরপুর থানা পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান। সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি দৈনিক আমাদের সময় ও দি নিউনেশনের জেলা প্রতিনিধি বিন্দু তালুকদাররের সভাপতিত্বে ও ঢাকা পোস্টের জেলা প্রতিনিধি আসাদ মনির সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি,দৈনিক সমকাল ও এটিএন বাংলার জেলা প্রতিনিধি পঙ্কজ দে, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সিনিয়র সহ সভাপতি মোহনা টিভি ও দৈনিক সবুজ সিলেটের জেলা প্রতিনিধি কুলেন্দু শেখর দাস তালুকদার, চ্যানেল এসের জেলা প্রতিনিধি আকরাম উদ্দিন, দৈনিক সোনালী খবরের জেলা প্রতিনিধি ফরিদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক দৈনিক ইত্তেফাক ও চ্যানেল নিউজ ২৪ এর জেলা প্রতিনিধি বুরহান উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দৈনিক মুক্তখবরের জেলা প্রতিনিধি সিরাজুল ইসলাম শ্যামল, কার্যকরী সদস্য অ্যাড. মাহবুবুল আলম শাহীন, তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ও সকালের সময়ের জেলা প্রতিনিধি কেএম, শহীদুল ইসলাম। এ সময় অন্যান্যদের উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির দপ্তর সম্পাদক জাগোনিউজের জেলা প্রতিনিধি লিপসন আহমদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক বাংলাদেশ পরিক্রমার জেলা প্রতিনিধি মেহেদী হাসান, সাহিত্য সম্পাদক সিলেট ২৪.কমের জেলা প্রতিনিধি সোহানুর রহমান সোহান, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক দৈনিক আজকের বসুন্ধরার জেলা প্রতিনিধি মুহবিুর রেজা টুনু, পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক দৈনিক হাওরাঞ্চলের কথার স্টাফ রিপোর্টার আলাউর রহমান, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্য সাপ্তাহিক একতার জেলা প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট এনাম আহমদ, এনটিভি ও সারাক্ষণের জেলা প্রতিনিধি দেওয়ান গিয়াস চৌধুরী, দৈনিক দেশরূপান্তর ও চ্যানেল ২৪ এর জেলা প্রতিনিধি অ্যাডভোকেট এ. আর জুয়েল, দৈনিক বর্তমান খবরে জেলা প্রতিনিধি উস্তার আলী, সুনামগঞ্জ ভয়েস.কমের সম্পাদক হাবিবুর রহমান জাবেদ, দৈনিক এশিয়া বানীর জেলা প্রতিনিধি আনোররুহক, দৈনিক স্বাধীন বাংলার জেলা প্রতিনিধি বাবুল মিয়া, চ্যানেল ২১টিভির জেলা প্রতিনিধি আল হাবিব, দৈনিক সুনামকণ্ঠের স্টাফ রিপোর্টার রেজাউল করিম প্রমুখ। মানববন্ধনে সাংবাদিক নেতারা সাংবাদিক কামাল হোসেনকে গাছের সাথে বেঁধে নির্মমভাবে নির্যাতনের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে এ ঘটনার সাথে জড়িত সকল অপরাধীকে দ্রæত গ্রেপ্তার করে কঠোরে শাস্তির দাবি জানান। অন্যতায় আগামীতে সাংবাদিক নেতারা আরো কঠোর কর্মসূচী দেয়ার ও হুশিয়ারী উচ্চারন করেন তারা। নেতারা আরো বলেন এই হাওরের জনপদ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত সৌন্দর্য্যের অপর লীলাভূমি যাদুকাটা নদী। যেখানে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ভ্রমণ পিপাসুরা পর্যটন এলাকা হিসেবে খ্যাত যাদুকাটা দেখতে আসেন। আর সেই জায়গাতে প্রতিনিয়ত স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী চক্র প্রশাসনের চোখ ফাকিঁ দিয়ে দিন কিংবা রাতে সরকারের রাজস্ব ফাকিঁ দিয়ে নদীর পাড় কেটে অবৈধভাবে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার বালু ও পাথর উত্তোলন করে তারা অল্পসময়ে লাখোপতি কোটিপতি বনে গেছেন। ঐ সমস্ত ভূমিখেকো চক্রের সদস্যদের এমন একসময় ছিল যাদের সুস আনতে পানতা পুড়াত তারা এখন তাদের অবৈধ বালুর ব্যবসা অব্যাহত রাখতে মূল বাধার কারণ হিসেবে সংবাদকর্মীদের মুখ বন্ধ রাখতে ভীত করতেই পূর্ব পরিকল্পিতভাবে স্থানীয় তাহিরপুর উপজেলা সাংবাদিক কামাল হোসেনকে গাছের সাথে বেধেঁ অমানসিক নির্যাতন করে যা পাকিস্থানী হানাদার বাহিনীর বর্বরতাকে ও হার মানিয়েছে। সাংবাদিক নেতারা আরো বলেন এই ভূমিখেকোদের সাথে আমাদের গুটিকয়েকজন সহকর্মীরা রয়েছেন যারা এই অবৈধ বালু মহাল থেকে কমিশন বাণিজ্য করে থাকেন। কাজেই এই সমস্ত দালালদের সাথে কোন ধরনের আপোষ না করতে সুনামগঞ্জের সঠিক ধারার সকল গণমাধ্যমকর্মীদের সতর্ক থাকার আহবান জানান। উল্লেখ্য, গত ১লা ফেব্রুয়ারি সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট জাদুকাটা নদীর ঘাগটিয়া এলাকায় নদীর তীর কেটে বালু-পাথর উত্তোলনের ছবি তোলার চেষ্টা করায় সাংবাদিক কামাল হোসেন (৩০) কে গাছের সাথে রশি দিয়ে বেঁধে নির্মমভাবে নির্যাতন করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা ভর্তি করা হয়েছে। সাংবাদিক কামাল হোসেন উপজেলার বাদাঘাট বাজার এলাকার কামরাবন গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। সাংবাদিক কামাল হোসেনকে গাছে বেঁধে মারপিটের ঘটনার ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার হলে সেটি ভাইরাল হয়।

Check Also

সরকারি রাস্তা দখল করে মণিরামপুরে পাঁকা দোকানঘর নির্মাণের অভিযোগ

মণিরামপুর প্রতিনিধি: মণিরামপুরের কোনাকোলা বাজারে এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তার জমি দখলের পর পাকা স্থাপনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *